আড়াই লাখ টাকা দিয়ে সোনার পুতুল কিনে, পরীক্ষা করে দেখলেন পিতল

আড়াই লাখ টাকা দিয়ে সোনার পুতুল কিনে, পরীক্ষা করে দেখলেন পিতল

এবার আড়াই লাখ টাকায় সোনার পুতুল কিনে প্রতারণার শিকার হয়েছেন রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার চর দৌলতদিয়া গ্রামের বাদশা (৬৫) ও তার ছেলে সাইদুর রহমান (৩২)। নাটোরের সিংড়ার এক নারী তাদের কাছে সোনার পুতুল বলে পিতলের পুতুল বিক্রি করে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় সিংড়া থানায় প্রতারণা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জানা যায়, বাদশা ও তার ছেলে সাইদুর মোটরসাইকেলে হন্ত-দন্ত হয়ে ফিরছিলেন। সিংড়া উপজেলার জামতলি রানীহাট রাস্তায় কয়াখাস নলপুকুরিয়া ব্রিজ মোড় এলাকায় এলোপাতাড়িভাবে চলছিল তাদের মোটরসাইকেল। পরে সন্দেহ হলে স্থানীয়রা পিছু ধাওয়া করে উপজেলার বিনগ্রাম বাজার এলাকায় তাদের আটক করেন স্থানীয়রা।

পরে বাদশা ও তার ছেলে সাইদুরকে তল্লাশি করে ব্যাগে রাখা দুটি পুতুল পাওয়া যায়। খবর পেয়ে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাদের সিংড়া থানায় নিয়ে যায়। তখন তারা জানান, আড়াই লাখ টাকা দিয়ে দুটি পুতুল কিনেছেন। এক নারী তাদের কাছে ওই দুটি পুতুল বিক্রি করেন। বিক্রেতা নারী তাদের কাছে সোনার বলে পুতুল দুটি বিক্রি করেন।

এ বিষয়ে সিংড়া থানার ওসি মিজানুর রহমান আজ মঙ্গলবার জানান, গতকাল সোমবার রাতে পুতুলসহ বাবা ও ছেলেকে থানায় নিয়ে আসার পর পরীক্ষা করে দেখা যায় সোনার পুতুল দুটি আসলে পিতলের তৈরি। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, ওই ঘটনায় প্রতারণার শিকার বাদশা বাদী হয়ে মামলা করেছেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই রহিম জানান, প্রতারককে ধরতে অভিযান চলছে।

সারা দেশ