বেশ কিছুদিন ধরেই তরমুজের আকাশ ছোঁয়া দামে দিশেহারা ছিলেন সাধারণ ক্রেতারা। বিশেষ করে পবিত্র রমজান মাসকে পুঁজি করে অসাধু ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ম্যে কেনা দায় হয়ে পড়েছিল এই মৌসুমি ফল। এরপরই আসে বয়কটের ডাক। এবার সেই তালে গরুর মাংস বয়কটের ডাক দেয়া হয়েছে।

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ কিছু গ্রুপ চোখে পড়ে যেখানে নেটিজেনরা গরুর মাংসের অস্বাভাবিক দাম নিয়ে কড়া প্রতিবাদ জানান। তাদের ভাষ্য, ক্রেতা সচেতন হলে অসাধাধু ব্যবসায়ীদের প্রভাব অনেকটাই কমে যাবে তরমুজের মতো।

পাঠকদের জন্য বেশ কিছু ভাইরাল বক্তব্য তুলে ধরা হলো, ফাইয়াদ হোসেন নামে একজন লেখেন, আসসালামু আলাইকুম, প্রিয় দেশবাসী আপনারা তরমুজকে বয়কট করেছেন, এখন বর্তমানে তরমুজের দাম ১০০ টাকা কেজির পরিবর্তে ৩০ টাকা ৪০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে, এবার আপনাদের পালা, গরুর মাংস কে বয়কট করুন, দেখবেন ৮০০ টাকা থেকে ৫০০ টাকা কেজিতে চলে এসেছে গরুর মাংস। ধন্যবাদ।

আরেক ব্যবহারকারী লেখেন, তরমুজের দাম বেড়েছিল আমরা সকলে তা বয়কট করেছিলাম তরমুজের সিন্ডিকেট ভেংগে দাম কমেছে। এবার চলুন গরুর মাংস বয়কট করি ১ মাস সবাই না কিনলে এটারও দাম কমে যাবে আমরা না কিনলে কার কাছে বিক্রি করবে তাই সবাই এরকম হোন।

এমন সংখ্য পোস্ট চোখে পড়ছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। অনেকেই কমেন্টে একাত্মতা প্রকাশ করছেন এতে। সকলের একটাই দাবি, মাংসের মতো যেন একটি অতিপ্রয়োজনীয় খাদ্য যেন সাধারণ ক্রেতার নাগালের ভেতর আসে।

মা নিয়ে উক্তি বাংলা উক্তি