আগামী ২০২৩ সালের জুন মধ্যে মাত্র ৭ শতাংশ কর দিয়ে বিদেশে পাচার করা টাকা দেশে নিয়ে আসা যাবে।

অর্থাৎ ১০০ টাকা নগদ আনলে সরকারকে ৭ টাকা কর দিতে হবে। সোমবার (৮ আগস্ট) এ সংক্রা;ন্ত একটি নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রা নীতি বিভাগ থেকে জারি করা নির্দেশনায় বলা হয়েছে, বাংলাদেশের বাইরে গচ্ছিত অপ্রদর্শিত অর্থ চলতি বছরের ১ জুলাই হতে ব্যাংকিং চ্যানেলের মাধ্যমে বৈ;ধভাবে দেশে এনে আয়কর রিটার্নে প্রদর্শন করা যাবে।

আগামী বছরের (২০২৩ সালের) ৩০ জুন পর্যন্ত এ নিয়ম বলবৎ থাকবে। অর্থ আইন ২০২২ এর মাধ্যমে আয়কর অধ্যাদেশ ১৯৮৪ এর ধারা-১৯এফ অনুসারে এ অর্থ বৈ;ধভা;বে দেশে আনা যাবে।

চলতি ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের বাজেটে প্রথমবারের মতো দেশ থেকে পাচার হওয়া টাকা বৈধ করার সুযোগ দেওয়া হয়েছে।

তবে এ টাকা দেশে ফেরত আনা হবে কীভাবে, সেটি এতদিন অনেকের কাছে স্পষ্ট ছিল না। তাই বিভ্রান্তি দূর করতে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে এ নির্দেশনা দেওয়া হলো।

এনবিআর কর্মকর্তারা বলছেন, সরকারের এ সুযোগ দেওয়ার ফলে কমপক্ষে ১০০ কোটি (১ বিলিয়ন) ডলার দেশে আসবে।

এই বিপুল টাকা অর্থনীতির মূল ধারায় যোগ হলে চাঙা হবে দেশের অভ্যন্তরীণ অর্থনীতি

Leave a Reply

Your email address will not be published.