নিজের চেয়ে ৩০ বছরের ছোট পাত্রীকে বিয়ে করলেন চাঁদে পদচারণ করা বাজ অলড্রিন,

নিজের চেয়ে ৩০ বছরের ছোট পাত্রীকে বিয়ে করলেন চাঁদে পদচারণ করা বাজ অলড্রিন,

চাঁদের পিঠে পদচারণ করা ২য় মানব বাজ অলড্রিন। তিনি একজন অবসরপ্রাপ্ত মহাকাশচারী। গত ২০ জানুয়ারি শুক্রবার তার জন্মদিন উদযাপন করেছেন।

এ সময় তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধযম টুইটারে লিখেছেন, তিনি লস অ্যাঞ্জেলেসে একটি ছোট অনুষ্ঠান করে ডঃ আনকা ফাউর (৬৩) নামে তার দীর্ঘদিনের সঙ্গীর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। এটি তার ৪র্থ বিয়ে বলে জানা যায়। খবর দ্য গার্ডিয়ান।

এক টুইটে তিনি আরও জানান, আমার ৯৩ তম জন্মদিন ও যেদিন আমি অ্যাভিয়েশনের জীবন্ত কিংবদন্তি হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করলাম সেদিনই আমি ডঃ আনকা ফাউর সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছি।

বাজ অলড্রিন টুইটারে অনুষ্ঠানের দুটি ছবি পোস্ট করেছেন, সেখানে তাকে একটি স্যুট পরিহিত অবস্থায় দেখা যাচ্ছে, একটি মেডেল এবং একটি এয়ার ফোর্স ব্যাজ দিয়ে সজ্জিত তার স্যুট। তার স্ত্রী আনকা ফাউর লেস পোশাক পরিহিত তার পাশাপাশি বসে আছেন।

এর আগে অলড্রিন তিনবার বিয়ে করেছেন এবং তালাক দিয়েছেন। তিনি ১৯৫৪ সালে জোয়ান অ্যান আর্চারকে বিয়ে করেছিলেন এবং বিবাহবিচ্ছেদের আগে এই দম্পতি ২০ বছর একসাথে ছিলেন।

তিনি ১৯৭৫ থেকে ১৯৭৮ সাল পর্যন্ত বেভারলি ভ্যান জিল এবং ১৯৮৮ থেকে ২০১২ সালের মধ্যে লোইস ড্রিগস ক্যাননকে বিয়ে করেছিলেন।

প্রসঙ্গত, ১৯৬৯ সালের ২০ জুলাই চাঁদের বুকে নিল আর্মস্ট্রং প্রথম পা রাখেন। তার কিছুক্ষণ পরই চাঁদে দ্বিতীয় ব্যক্তি হিসেবে পা রাখেন বাজ অলড্রিন।

তারা দুজনই মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসার অ্যাপোলো-১১ চন্দ্রযানে করে চাঁদের বুকে অবতরণ করেছিলেন। সেই ঐতিহাসিক অভিযাত্রায় তাদের সঙ্গী ছিলেন মাইকেল কলিন্স।

তিনি অবশ্য দুই সঙ্গীর সঙ্গে চাঁদে পা রাখতে পারেননি। কারণ তিনি চাঁদের কক্ষপথে কমান্ড মডিউলের দায়িত্বে ছিলেন। এই তিন মার্কিন নভোচারীই পরে ইতিহাসের কিংবদন্তিতে পরিণত হয়েছেন।

বিশ্ব সংবাদ