ফরিদপুর-খুলনা মহাসড়কের গঙ্গাবর্দী এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় নজরুল ইসলাম (৩৮) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। এছাড়া দুই বাসের অন্তত ২১ যাত্রী আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

নিহত নজরুল মুন্সিগঞ্জের লৌহজংয়ের কুমারভোগ এলাকার রাজ্জাকের ছেলে। তবে আহত ব্যক্তিদের নাম-পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি।

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় একটি বিদ্যুতের খুঁটি ক্রেন থেকে ছুটে চলন্ত বাসের মধ্যে ঢুকে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা তালুকদার পরিবহনের দ্রুতগতির একটি বাস মেহেরপুর থেকে ছেড়ে আসা বিপরীতমুখী জেআর পরিবহনকে সাইড দিতে গিয়ে ধাক্কা দেয়। এতে জেআর পরিবহনটি রাস্তার পাশে গাছের সঙ্গে ধাক্কা খায়। এ সময় তালুকদার পরিবহনটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে বৈদ্যুতিক খুঁটি তোলার ক্রেনের সঙ্গে আঘাত লাগে। এতে বিশাল আকৃতির একটি বৈদ্যুতিক খুঁটি বাসটির সামনে দিয়ে ঢুকে পেছন পর্যন্ত চলে যায়। এতে বাসে থাকা একজন নিহত হয়েছেন এবং ১৫ যাত্রী আহত হন।

অপর বাসটিরও ছয় যাত্রী আহত হন। তাদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদের উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। এদের মধ্যে দুজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

ফরিদপুরের করিমপুর হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কংকর কুমার বিশ্বাস বলেন, একজন নিহতের খবর পাওয়া গেছে। আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে জেলার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত নিহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.