ইউরোপের দ্বীপ মাল্টায় ছুটি কাটানোর সময় এক ইয়টে হঠাৎ হৃদরোগে আক্রান্ত হন বিউটি ইনফ্লুয়েন্সার ফারহা এল কাদি। তাকে তৎক্ষণাৎ স্থানীয় এক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। মৃত্যু কালে তার বয়স হয়েছিল ৩৬ বছর। ফারহার আকস্মিক মৃত্যুতে মর্মাহত তার অনুরাগীরা।

ফারহা এল কাদির ইনস্টাগ্রাম বায়ো অনুসারে, সৌন্দর্য এবং লাইফস্টাইল সামগ্রী তৈরির পাশাপাশি তিনি একটা বেসরকারি সংস্থার স্থপতিও ছিলেন। মধ্য ভূমধ্যসাগরে অবস্থিত ইউরোপীয় এই দ্বীপে থাকাকালীন তিনি বেশ কয়েকটি ব্র্যান্ডের প্রচারও করছিলেন। ফারহার শরীরে কোনও রকম আঘাতের চিহ্ন ছিল না বলেই জানা গেছে। তবে ময়নাতদন্তের পরই সব সঠিকভাবে জানা সম্ভব বলে জানিয়েছে স্থানীয় পুলিশ।

ফারহা এল কাদির শেষ ইনস্টাগ্রামে পোস্টটি ছিল গত ৭ জুন, গ্রিসের মাইকোনোসের এক রেস্তোরাঁ থেকে সেটি পোস্ট করেছিলেন ফারহা। তিনি নিজেকে ‘ভ্রমণ আসক্ত’ এবং বাথরুম গায়ক হিসাবে বর্ণনা করেছিলেন।

ইতালি থেকে করা তার আগের পোস্টে তিনি লিখেছিলেন, ‘আমি আমার জীবন স্প্যাগেটি অ্যালে ভঙ্গোল ও আল পোমোডোরো খেয়ে, প্রসেকো পান করে, প্রাডা পরে এবং ইরোস রামাজ্জতির গান গেয়ে কাটিয়ে দিতে পারি।’

এই মৃত্যুর খবরে তিউনিসিয়ান বিউটি ইনফ্লুয়েন্সার সোলাইমা হ্নেইনিয়া লিখেছেন, ফারাহ এল কাদি সত্যিই একজন দুর্দান্ত ব্যক্তি, তিনি তার দয়া, উদারতা এবং উষ্ণতার জন্য পরিচিত।

তিনি লিখেছেন, যারা তাকে কাছ থেকে জেনেছেন বা দেখেছেন, ফারহার ইতিবাচক মনোভাব তাদের প্রত্যেককে স্পর্শ করেছিল। তিনি তো ঘুমের মধ্যে শান্তিপূর্ণভাবে মারা গেছেন।

এদিকে ফারহা এল কাদির শেষ ইনস্টাগ্রাম পোস্টের নিচে কমেন্টের বন্যা বয়ে গেছে। হায়াত ইন্টারন্যাশনাল রিয়েলটির সভাপতি সিইও এডি ফ্যাডেল লিখেছেন, কোনো শব্দ নেই। আপনার স্মৃতি চিরস্থায়ী হোক।

আরাও পড়ুন... সেরা উক্তি