প্যারিসের জনপ্রিয় রেস্তোরাঁ সি লামি লুই কিনে নিয়েছে সংস্থাটি।
ইউরোপের শীর্ষ ধনী বেহনা আহনোঁর মালিকানাধীন কোম্পানি এলভিএমএইচ, যাকে বলা যায় বিলাসপণ্যের এক সাম্রাজ্য। এর অধীনে রয়েছে ডিজাইনার ফ্যাশন ব্র্যান্ড, অলংকার ও হোটেল পরিষেবা।

সম্প্রতি কনগ্লোমারেটটি এক বিবৃতিতে জানায়, মধ্য প্যারিসের শতবর্ষী রেস্তোরাঁ সি লামি লুইর বেশির ভাগ শেয়ার কিনে নিয়েছে এলভিএমএইচ। জনপ্রিয় এ রেস্টুরেন্টকে ‘নিখাদ ফরাসি রত্ন’ বলে অভিহিত করা হয়েছে বিবৃতিতে।

অবশ্য অংশীদারত্বের পরিমাণ ও এর মূল্য সম্পর্কে কোনো তথ্য দেয়নি বেহনা আহনোঁর কোম্পানি। তারা বলছে, মালিকানায় পরিবর্তন এলেও সি লামি লুইর স্বতন্ত্রতা বজায় রেখে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা এগিয়ে নেয়া হবে।

রোস্ট চিকেন, মচমচে ফ্রাই ও ঝলসানো শামুকসহ বিভিন্ন ধরনের খাবারের জন্য পরিচিত ক্ল্যাসিক এ বিস্ট্রো। এতে বিভিন্ন সময়ে অতিথি হিসেবে এসেছিলেন বিল ক্লিনটন, মার্টিন স্করসিজ, ডেভিড ও ভিক্টোরিয়ার বেকহাম দম্পতিসহ পরিচিত মুখ। অবশ্য এ অতিথিদের আগমন গোপনীয়তা রক্ষা করেই হয়েছিল। তবে হলিউড অভিনেত্রী গিনেথ পালট্রোর লাইফস্টাইল কোম্পানি গুপের ওয়েবসাইটে এ রেস্তোরাঁর প্রশংসা রয়েছে।

১৯২৪ সালে চালু হওয়া সি লামি লুইকে প্রায়ই বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় রেস্তোরাঁ বলে অভিহিত করা হয়। আবার কেউ কেউ সবচেয়ে বাজে রেস্তোরাঁ বলতেও ছাড়েন না। এতে ফরাসি ঐতিহ্য বজায় রেখে মাত্র ১৪টি টেবিলে খাবার পরিবেশন করা হয়। এর প্রতিষ্ঠাতা শেফ আন্তোনিও মাগনিন ১৯৮৭ সালে মারা গেছেন।

কয়েক প্রজন্ম ধরে রেস্তোরাঁটি খাদ্য উপকরণের জন্য নিজস্ব উৎপাদকের পণ্যের ওপর নির্ভরশীল। এলভিএমএইচ প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, সেই সংস্কৃতির প্রতি তারা বিশ্বস্ত থাকবে।

চুক্তির সঙ্গে ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানায়, বেহনা আহনোঁ এ রেস্তোরাঁয় খাবার খেয়েছেন। এ বিলিয়নেয়ার প্যারিসের সাংস্কৃতিক ‘পরিচয় ও অভিব্যক্তি’র সঙ্গে যুক্ত এমন প্রতিষ্ঠানগুলো সংরক্ষণের বিষয়ে বেশ আগ্রহী।

কয়েক বছর আগে ৮৫০ বছরের পুরনো নটর ডেম গির্জা আগুনে ধ্বংস হয়ে যায়। ওই সময় স্থাপনাটি পুনর্নির্মাণে এলভিএমএইচ ও বেহনা আহনোঁ ২২ কোটি ৬০ লাখ ডলার অনুদান দেন।

ব্লুমবার্গ বিলিয়নেয়ার্স ইনডেস্ক অনুসারে, জেফ বেজোস ও ইলোন মাস্কের পর আনুমানিক ১৯ হাজার ৯০০ কোটি ডলারের সম্পদ নিয়ে বর্তমানে বিশ্বের তৃতীয় শীর্ষ ধনী বেহনা আহনোঁ।

ডিওর ও লুই ভিতোঁর মতো ডিজাইনার ব্র্যান্ড রয়েছে এলভিএমএইচের ঝুলিতে। ২০১৯ সালে কোম্পানিটি হোটেল ও লাক্সারি রেল ও রিভার ক্রুজ পরিষেবা বেলমন্ড কিনে নেয়। ওই চুক্তির মূল্য ছিল ৩২০ কোটি ডলার। চলতি মাসের শুরুর দিকে এলভিএমএইচ জানিয়েছিল, বিলাসী রেল পরিষেবা ওরিয়েন্ট এক্সপ্রেসে কৌশলগত বিনিয়োগে অংশ নেবে তারা।

খবর সিএনএন।

আরাও পড়ুন... সেরা উক্তি