ড্রেসিং রুমের বাইরে একটি চেয়ারে বসে পড়লেন রোহিত শর্মা। তার চোখে তখন জল। বাঁ হাত তুলে চোখ ঢাকলেন। কয়েক সেকেন্ড পরে হাত নামালেন। তাকিয়ে থাকলে সামনের দিকে।

দেখে বোঝা যাচ্ছিল, ফাইনালে উঠে বিশেষ করে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রতিশোধ তুলে ফাইনালে উঠে কতটা আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছেন তিনি। অধিনায়ক হিসাবে ২২৬ দিন পরে ভারতকে আরও একটি ফাইনালে তুলেছেন রোহিত। সেই সব কথাই হয়তো ভাবছিলেন এই ব্যাটার। কিছুক্ষণ পরে বিরাট কোহলি ড্রেসিং রুম থেকে বেরিয়ে রোহিতের সামনে দাঁড়ালেন। তার গায়ে হাত রেখে কথা বললেন। হাসানোর চেষ্টা করলেন। শেষ পর্যন্ত হাসি দেখা গেল রোহিতের মুখেও।

শনিবার (২৯ জুন) ফাইনালে ভারতের সামনে দক্ষিণ আফ্রিকা। সেই ম্যাচে তারা কেমন ক্রিকেট খেলতে চান সে কথা জানিয়ে দিয়েছেন রোহিত। ভারত অধিনায়ক বলেন, ‌‘দল হিসাবে আমাদের খুব শান্ত থাকতে হবে। কারণ, মাথা ঠান্ডা থাকলে তবেই সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়া যায়। ফাইনালে জিততে হলে ভালো ক্রিকেট খেলা ছাড়া কোনও উপায় নেই। আমরা এবার আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলছি। সেটাই ফাইনালে আরও এক বার খেলতে চাই।’

রোহিত এই ম্যাচেও অর্ধশতরান করেছেন। কিন্তু আরও একবার ব্যর্থ হয়েছেন বিরাট। চলতি প্রতিযোগিতায় এখনও পর্যন্ত তার ব্যাটে রান নেই। তাতে অবশ্য বেশি চিন্তা করছেন না রোহিত। ফাইনালেও বিরাটই ওপেন করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। রোহিত বলেন, ‘বিরাট কেমন ক্রিকেটার তা আমরা সবাই জানি। সবার ক্যারিয়ারেই খারাপ সময় আসে। ও জাত ক্রিকেটার। সেটই গুরুত্বপূর্ণ। খারাপ সময় কেটে যায়। ওর রান করার কতটা তাগিদ রয়েছে সেটা দেখা যাচ্ছে। ফাইনালেও ওই ওপেন করবে।’

আরাও পড়ুন... সেরা উক্তি