যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবেই নয়, দৈনন্দিন জীবনের নানান কাজেই এখন আমরা ব্যবহার করছি এটি। তীব্র গরমে এই অতি প্রয়োজনীয় ডিভাইসটির যত্ন নেওয়া খুব জরুরি। এ সময় সবচেয়ে বেশি ফোন বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। তবে ফোন বিস্ফোরণ শুধু গরমের কারণেই যে হয় তা কিন্তু নয়। ব্যবহারের ভুলে ফোনের ব্যাটারি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েও ফোন বিস্ফোরণ হতে পারে।

♦ মুঠোফোন বিস্ফোরণের প্রথম যে কারণটি রয়েছে তা হলো—নির্মাতা কোম্পানির ভুলে মোবাইল ফোনের একাধিক ত্রুটি। এই ত্রুটির কারণেই ফোনের ভেতরে থাকা লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি বিস্ফোরিত হয়। সাধারণত নিম্নমানের ব্যাটারি ব্যবহৃত হলে শট সার্কিট হওয়ার আশঙ্কা অনেকটাই বেড়ে যায়।

♦ মুঠোফোন বিস্ফোরণের অন্যতম কারণ হচ্ছে ফোন গরম হয়ে যাওয়া। তাই ফোন যেন গরম না হয়ে যায় সেদিকে খেয়াল রাখুন। আর অতিরিক্ত চার্জ দেওয়া থেকে বিরত থাকুন।

♦ ফোন চার্জে দিয়ে অনেকেই কথা বলেন, গেম গেলেন কিংবা ফেসবুক স্ক্রোল করেন। যেটা ফোনে জন্য অনেক বেশি ক্ষতিকর। এগুলো একেবারেই করা যাবে না। এতে ফোন গরম হয়ে হাতেই বিস্ফোরণ ঘটতে পারে।

♦ ফোনের ব্যাটারি যদি ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে থাকে তা দ্রুত পাল্টে ফেলুন। অনেক সময় দেখবেন ফোনের পেছনে কিছু অংশে ফুলে থাকে। সেই ক্ষেত্রে সচেতন থাকুন এবং যত দ্রুত সম্ভব ফোন পাল্টে ফেলুন।

♦ ঘণ্টার পর ঘণ্টা ফোনে কথা বলবেন না। এতে ফোনের সাথে আপনার নিজেরও সমস্যা হতে পারে। ফোনকে বিশ্রাম দিন। ঠান্ডা হতে দিন।

♦ কোনো কাজের ব্যস্ততায় রোদে ফোন ফেলে রাখবেন না। ধরুন এমন কোথাও আছেন, যেখানে রোদ, হয়ত ভুলে হাতের কাছে ফোনটা রেখে দিলেন, এমনটা করবেন না। তাতে ফোন অতিরিক্ত গরম হয়ে খারাপ হয়ে যেতে পারে।

♦ ফোনের সঙ্গে যে চার্জার দিয়ে দেওয়া হয়, চার্জ দিতে সেটি ব্যবহার করা যথোপযুক্ত। একই রকম দেখালেও নিম্নমানের চার্জার ব্যবহার করলে ফোন গরম হয়ে যেতে পারে। খারাপ হয়ে যেতে পারে ভেতরের যন্ত্রপাতি। এমনকি ফোনের ব্যাটারিতে দেখা দিতে পারে শর্ট সার্কিটের সমস্যা। যে কোনো সময় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটতে পারে।

♦ বিদ্যুতের কানেকশনে ত্রুটিও স্মার্টফোন বিস্ফোরণের কারণ হতে পারে। অনেক সময় দেখা যায় যে দেয়ালের বৈদ্যুতিক সকেটগুলো দেওয়া এবং সেখানেই স্মার্টফোন চার্জ দিচ্ছেন। এতে শর্ট সার্কিট হয়ে যে কোনো সময় স্মার্টফোন বিস্ফোরণ হতে পারে।

♦ ঝড়-বৃষ্টির সময় ফোন চার্জ দিবেন না। বজ্রপাত হলে ফোনসহ যেকোনো ইলেকট্রনিক ডিভাইস বিস্ফোরণ হতে পারে। এ সময় প্রথমেই প্রতিটি বৈদ্যুতিক যন্ত্র থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে হবে। বাজ পড়ার জন্য অপেক্ষা করবেন না।

আরাও পড়ুন... সেরা উক্তি