বিশ্বকাপ বাছাইয়ের তৃতীয় রাউন্ডে যেতে নিজেদের শেষ ম্যাচে কাতারকে হারানো ছাড়া বিকল্প ছিল না ভারতের কাছে। সেই পথেই এগোচ্ছিল ভারত, প্রথম গোলটাও করে ফেলেছিল। কিন্তু জয়ের খুব কাছে যেয়েও শেষ পর্যন্ত স্বপ্নভঙ্গ হয়েছে তাদের। বিতর্কিত গোলে ৭৩ মিনিটে সমতায় ফেরা কাতার ৮৫ মিনিটে ফের গোল করে ভারতকে হারিয়ে দিয়েছে ২-১ গোলে।

ম্যাচের শুরু থেকে ভারতের ওপর আধিপত্য বিস্তার করে খেলতে থাকে কাতার। তবে ধীরে ধীরে নিজেদের গুছিয়ে নেয় ভারত। ম্যাচের ৩৬ মিনিটে গোলের দেখা পায় ভারত। লালিয়ানজুয়ালা ছাংতের করা গোলে লিড নেয় ভারত। ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় ভারত।

কাতারের বিপক্ষে ৭৩ মিনিট পর্যন্ত এগিয়েও ছিল ভারত। এরপরই হাস্যকর রেফারিংয়ের শিকার হয় তারা। ইউসুফ আইমেনের একটি হেড ভারতের গোলরক্ষক গুরপ্রীত সিং বাচিয়ে দেয়ার পর বল গড়িয়ে পোস্টের পাশ দিয়ে বাইরে চলে যায়। তখন আরেক কাতারি আল হাসান সেখান থেকে বল টেনে নিয়ে এসে বাড়ান আইমেনকে। টোকা মেরে বল পোস্টে পাঠান আইমেন।

গোলের পর কাতারের ফুটবলারদের দেখে পরিষ্কার বোঝা যায় তারাও ভাবেননি এটি গোল দেওয়া হবে। কিন্তু কোরিয়ান রেফারি কিম উয়ো সাং সবাইকে অবাক করে দিয়ে গোল দিয়ে দেন। ভারতীয়রা প্রতিবাদ করলেও কানে তোলেননি। ভিএআর না থাকায় ঘটনাটা দেখারও সুযোগ ছিল না।

এর কয়েক মিনিট পর কাতার দ্বিতীয় গোল করে ম্যাচ জিতে নেয়। আরেক ম্যাচে আফগানিস্তানকে হারানো কুয়েত ভারতকে টপকে জায়গা করে নেয় তৃতীয় রাউন্ডে।

আরাও পড়ুন... সেরা উক্তি