সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ পরিচিত ‘কুঁড়েঘর’ গানের দলের তরুণ কণ্ঠশিল্পী তাসরিফ খান। ২০২২ সালে সিলেটের বন্যাদুর্গত বিপর্যস্ত মানুষদের জন্য আর্থিক সহায়তা চেয়ে ফেসবুকে লাইভ করেন। যা মুহূর্তেই ভাইরাল হয়। পরে মানবিক মানুষদের সহায়তায় কোটি টাকার বেশি ফান্ড সংগ্রহ করে বন্যার্ত মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে আলোচনা ও প্রশংসায় ভাসেন তাসরিফ।

গত ৩ ফেব্রুয়ারি হবিগঞ্জের চুনারুঘাট ডিসিপি স্কুল মাঠে একটি জনসভায় গিয়েছিলেন তিনি। হবিগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন আয়োজন করেছিলেন অনুষ্ঠানটির। কিন্তু এই অনুষ্ঠানে গিয়ে নিজের আইফোনটি হারিয়ে ফেলেন গায়ক তাসরিফ।

তরুণ এ গায়ক অনুষ্ঠানস্থলে গাড়ি থেকে নামার সময় বেশ ভিড় ছিল। তখন তার পকেট থেকে কেউ একজন মোবাইল ফোনটি কৌশলে নিয়ে নেয়। এ নিয়ে অবশ্য পরে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ব্যারিস্টার সুমন।

অনুষ্ঠানের মঞ্চে ব্যারিস্টার বলেন, এটা কেমন হলো? তাসরিফ খান ঢাকা থেকে এসেছে আমাদের মাঝে। আর তার পকেট থেকে কিনা আইফোনটি চুরি করে নেয়া হলো। গাড়ি থেকে নামতেই ভিড়ের মধ্যে পকেট থেকে তার ফোনটি বের করে নেয়া হয়েছে। এটা খুবই খারাপ কাজ হয়েছে।

এছাড়া ব্যারিস্টার সুমন পরবর্তীতে সংবাদমাধ্যমকে বলেন, আমার অনুরোধে ঢাকা থেকে অতিথি হয়ে এখানে এসেছিলেন। কিন্তু তাসরিফের ফোনটি কিভাবে চুরি হয়ে যায়, যা একজন এমপি হিসেবে আমার জন্য বিব্রতকর। আমি এ ঘটনায় লজ্জিত। ফোনটি উদ্ধারের জন্য চেষ্টা চলছে।

জানা গেছে, সদ্য অনুষ্ঠিত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর নিজ আসনে মন্ত্রী, শীর্ষস্থানীয় কনটেন্ট ক্রিয়েটর ও বিভিন্ন সুধীজনদের নিয়ে তারুণের এক সমাবেশের আয়োজন করেছিলেন ব্যারিস্টার সুমন।